হৃতিক রোশন ও কঙ্গনা রানাওতের সম্পর্কের খুটিনাটি

0
410

বিনোদন ডেক্স:

হৃতিক রোশনকে নিয়ে বেশ কয়েক বছর ধরে কানাঘুসা চলার পর ক্যামেরার সামনে সকল তথ্য তুলে ধরলেন কঙ্গনা রানাওত। ‘আশিকি-থ্রি’ থেকে কঙ্গনাকে বাদ দেওয়ায় পেছনে হৃতিকের ভূমিকা আছে দাবী করে এবং তাকে ‘প্রাক্তন প্রেমিক’ বলে মন্তব্য করে সর্বপ্রথম এবিষয়টি জন সমক্ষে আনেন কঙ্গনা।

এরপর কোর্টের নোটিশ থেকে শুরু করে ইমেইলের গল্প বানিয়ে বিভিন্ন চেষ্টা চালিয়েছেন হৃতিক। তবে সত্য কখনো চাপা থাকেনা। আর অন্যের গায়ে কাদা ছুড়তে গেলে প্রথমে নিজের হাতেই কাদা লাগে। তাই দেরিতে হলেও সকল কথা প্রকাশ পেয়ে গেল এ সপ্তাহের ‘আপ কি আদালত’ শো’য়ের মাধ্যমে।

শনিবার রজত শর্মা পরিচালিত জনপ্রিয় তারকালাপ অনুষ্ঠান ‘আপ কি আদালত’এ অতিথি হয়ে এসে সকল কথা খোলসা করেন কঙ্গনা। ৪০ মিনিটের শো’য়ে প্রতিটি কথা দৃঢ় ভাবে বলে সকলের মন জিতে নেন তিনি।

শো’য়ের একটি অংশে কঙ্গনা বলেন, “আমি তাকে(হৃতিক) অনেক ভালোবাসতাম। তাকে নিয়ে আমি যে কবিতাগুলো লিখেছি সেগুলো জনসমক্ষে সে প্রকাশ করেছে আমাকে অপমান করার জন্য। এর চেয়ে আমার মৃত্যু হলেও ভালো হতো।”

কঙ্গনা আরও বলেন, “তার জন্য আমি অনেক অপমান সহ্য করেছি। মানসিকভাবে আমি ভেঙে পড়েছিলাম। রাতের পর রাত আমি ঘুমাতে পারিনি। বাজে আচরণের জন্য আমার কাছে তার ক্ষমা চাওয়া উচিত।”

২০১৩ সালে ‘কৃষ-থ্রি’ ছবির সেটে হৃতিকের সঙ্গে কঙ্গনার ঘনিষ্ঠতার গুঞ্জন ওঠে। সেই বছরই স্ত্রী সুজান খানের সঙ্গে বিচ্ছেদ ঘোষণা করায় তাদের প্রেমের খবরটি আরও জোরালো হয়। সেসময় হৃতিক কঙ্গনাকে সম্পর্কের নাম দেওয়ার আশ্বাস ও দিয়েছিলেন। এরপর হঠাতই রং বদলে যায় হৃতিকের এবং তাদের সম্পর্কের ইতি টানে সেখানেই।

কঙ্গনা ও হৃতিকের সম্পর্ক তখন শুরু হয় যখন কঙ্গনা বলিউডের একজন নতুন মুখ ছিলেন এবং সম্পর্ক ভাঙ্গার সময় কঙ্গনা ছিলেন বলিউড সুপারস্টার। ১৫ সেপ্টেম্বর মুক্তি পেতে চলেছে কঙ্গনার নতুন সিনেমা ‘সিমরান’। এতে প্রথমবারের মতো এক চোরের ভূমিকায় দেখা যাবে তাকে। প্রতিবারের মতো এবারও তার থেকে নতুন কিছুর আশা করছে কঙ্গনা ভক্তরা। খালিজ টাইমস